জানলা-দরজা খোলা রাখলে ভাইরাস বেরিয়ে যায়, বললেন মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্যে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা হু হু করে বাড়ায় কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে ফের লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।আর এর মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  চিকিত্সকদের সঙ্গে নবান্নে আলোচনার সময় বললেন জানলা-দরজা খোলা রাখলে ভাইরাস বেরিয়ে যায়।তাই ঘিরে পাল্টা আক্রমণ বঙ্গ বিজেপির,বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য কটাক্ষ করে প্রশ্ন করেন, “দরজা-জানলা খুললেই যদি ভাইরাস চলে যায় তবে ভ্যাকসিনের খোঁজ করার দরকার কী?”

নবান্নের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন ,এসি চালানোর জন্য দরজা-জানলা বন্ধ করা প্রয়োজন। “দরজা-জানলা যদি খুলে দেওয়া যায়, তাহলে ভাইরাস তাড়াতাড়ি চলে যায়। তাই প্রত্যেকে জানলা-দরজা খুলে রাখুন। হাসপাতালে এসির ব্যবস্থা হলেও, একটা নির্দিষ্ট সময় জানলা খুলতে হবে।তিনি আরও বলেছেন , “আমি যখনই গাড়িতে যাতায়াত করি তখন আমি জানালা খোলা রাখি। আমার বাড়িতে অনেকগুলি উইন্ডো বা দরজা নেই। তবে, আমি যতটা সম্ভব খোলা রাখি। ঘরে সূর্যের আলো বা বাইরের বাতাসের প্রবেশ ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ডাক্তারদেরও দরজা এবং জানালা খোলা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। “ধরে নিই যে ডাক্তাররা ২৪ ঘন্টা কাজ করে, পোর্টেবল এয়ারকন্ডিশনাররা ৪-৫ ঘন্টা কাজ করবে। যদি সম্ভব হয় তবে ১ থেকে ১.৫ ঘন্টা জন্য দরজা এবং জানলা  খুলুন।

বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালভিয়া মুখ্যমন্ত্রীকে ‘এপিডেমিওলজিস্ট’ বলে কটাক্ষ করেনতার সঙ্গে তিনি বলেন, “দরজা-জানলা খোলা রাখলেই যদি হয়ে যেত তাহলে গোটা বিশ্ব ভ্যাকসিন খুঁজছে কেন?”

Facebook Comments

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *