দিদির উদ্যোগ:এবার রেশনের দোকানে মিলবে পেঁয়াজ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতি কেজি 100 রুপি অতিক্রম করার খবর পেয়ে কলকাতা ও এর আশেপাশে ন্যায্যমূল্যের (রেশন) দোকানে 467 টন পেঁয়াজ বিক্রি করার পরিকল্পনা চালু করে দিয়েছে। পাঁচ বছর পরে 12 টাকা কেজি দরে আলু বিক্রির চেষ্টা করার পর জনসাধারণের বিতরণ কেন্দ্র থেকে এই সিদ্ধান্ত আসে।

রবিবার রান্নাঘরের প্রধান দ্রব্য পেঁয়াজের কম দাম 40 কেজির জন্য 2400-2800 টাকা (প্রতি কেজি 60 থেকে 70 টাকা), সাপ্তাহিক ছুটির শেষে 2600 থেকে 3100 টাকা (65 থেকে 77.50 টাকা প্রতি কেজি) হয়েছে। তবে এই ডিপটি বেশিরভাগ মার্কেটে 100 টাকা থাকায় খুচরা-দাম ঝরে পড়েনি। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, নতুন ফসল আসার পরে খুচরা দাম কেবল ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে ডুববে।

সোমবার, খাদ্য ও সরবরাহ ও কৃষি বিপণন বিভাগের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা বিশদটি চূড়ান্ত করতে বৈঠক করবেন। খাদ্য ও সরবরাহমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয়া মল্লিক বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লোকদের তাত্ক্ষণিক ত্রাণ দিতে বলেছেন। “আমরা বিষয়টি পর্যালোচনা করার জন্য আগামীকাল একটি সভা করছি।সূত্রমতে, 02 নভেম্বর কৃষি বিপণন বিভাগের যুগ্ম সচিবের খাদ্য ও সরবরাহ বিভাগের অতিরিক্ত সচিবের দেওয়া চিঠিতে 467 টন পেঁয়াজ চেয়েছে। ধারণা ছিল প্রতি সপ্তাহে ন্যায্যমূল্যের দোকানে পাঁচ কুইন্টাল (500 কেজি) পেঁয়াজ বরাদ্দ করার। জাতীয় কৃষি সমবায় বিপণন ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (নাএফএডি) কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী জেলাগুলিতে খুচরা বিক্রয়ের জন্য প্রতিদিন 200 টন পেঁয়াজ সরবরাহ করতে সক্ষম হবে কিনা তাও কর্মকর্তারা সন্ধান করছেন।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: