3 সপ্তাহের বন্ধুত্ব: ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রধানমন্ত্রী মোদীকে টুইটারে আনফলো করলো

কিছুদিন আগেই করোনার মোকাবিলায় সাহায্য করার জন্য হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দিয়ে আমেরিকাকে সাহায্য করেছিল ভারত। তবে সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াটস হাউস নরেন্দ্র মোদি থেকে শুরু করে নরেন্দ্র মোদির দফতর, ভারতের রাষ্ট্রপতির দফতরের মতো আরো পাঁচটি প্রোফাইলকে টুইটার থেকে আনফলো করে দেওয়ার পর থেকেই গোটা বিশ্বজুড়ে উঠেছে প্রশ্ন।

প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও, হোয়াইট হাউস ভারত সম্পর্কিত অন্যান্য অ্যাকাউন্টও আনফলো করেছে – রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ওয়াশিংটন ডিসিতে ভারতীয় দূতাবাস (@ ইন্ডিয়ান এম্বেসিইউস) এবং নয়াদিল্লিতে মার্কিন দূতাবাস, বুধবার আউটলাইন্ডিয়া ডটকমকে জানিয়েছে।

আরও পড়ুন  একুশের বিধানসভার আগে বড়সড় রদবদল মালদহের তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে

গত 10ই এপ্রিল নাগাদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও তার অফিস এবং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে টুইটারে ফলে করে হোয়াইট হাউস। তখন হোয়াইট হাউস ফলো করা অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ছিল 19। কিন্তু এবার তা হয়েছে 13। আর সেই 19 টি অ্যাকাউন্টের থেকে ৬ জনকে আনফলো করল মার্কিন প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউস।অনেকে মনে করছেন এতে অন্য কারণ আছে আসলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেরর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত কমিশনের রিপোর্ট অনুযায়ী ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিমদের অবস্থা সঙ্কটজনক। আর এর জেরেই হোয়াইট হাউসের এই প্রতিক্রিয়া কি না তা এখনো জানা যায়নি।

আরও পড়ুন  একুশের বিধানসভার আগে বড়সড় রদবদল মালদহের তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে

ইন্ডিয়া টুডে এবং টেলিভিশন নিউজ পোর্টাল এনডিটিভি ডটকমের মাধ্যমেও একই খবর পাওয়া গেছে

 

Facebook Comments

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *