ক্ষুধার্ত মোকাবেলায় ভারত বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের থেকেও পিছিয়ে: আন্তর্জাতিক সমীক্ষা

বিশ্ব ক্ষুধা সূচক 2019 এর তালিকায় 117টি দেশের মধ্যে 102 নম্বরে নেমে গিয়েছে ভারতের অবস্থান, পড়শি দেশ নেপাল, বাংলাদেশ, এবং পাকিস্তানের চেয়ে পিছিয়ে। গত বছর এই তালিকায় ভারতের অবস্থান ছিল 95।গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স (জিআইএইচ) যৌথভাবে বিশ্বব্যাপী প্রকাশ করেছে। আন্তর্জাতিক খাদ্য নীতি গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইএফপিআরআই) দ্বারা সূচকটি গণনা করা হয় । এটি আঞ্চলিক, জাতীয় এবং বৈশ্বিক স্তরে ক্ষুধা নিরূপণ ও সনাক্ত করে। 2019 গ্লোবাল ক্ষুধা সূচক 117 টি দেশের ক্ষুধা মেটাচ্ছে। ভারত 102 তম স্থানে রয়েছি এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির র‌্যাঙ্কিংয়ের মধ্যে সর্বনিম্ন স্থান। বাকিদের অবস্থান নেপাল (73), শ্রীলঙ্কা (66), বাংলাদেশ (88), মায়ানমার (69) এবং পাকিস্তানও (98)ইত্যাদি । বিশেষত ব্রিকস দেশগুলির তুলনায় ভারত অনেক পিছিয়ে ।

আরও পড়ুন  দৈনিক বাংলা কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ০৫ ও ০৬ এপ্রিল ২০২১

জিএইচআই স্কোর দেশের শিশুর জনসংখ্যার যে পরিমাণটি অপুষ্টিযুক্ত, যে শিশুরা 5 বছরের কম বয়সী এবং তাদের উচ্চতার জন্য অপর্যাপ্ত ওজন নেই, শিশুমৃত্যু হার (5 বছরের কম বয়সী আইএমআর) এবং উচ্চতা সমান নয় এমন শিশুদের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে ।

একনজরে সমীক্ষা:

  • চাইল্ড ওয়েস্টিং বা শিশু ক্ষয়ের-এর এমন হার তালিকায় থাক ভারত ছাড়া আরা অন্য কোনও দেশে নেই
  • চাইল্ড ওয়েস্টিং-এর হার বেশি সেগুলির মধ্যে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাত। এ ছাড়া ওই তালিকায় রয়েছে ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, কর্নাটক
  • ভারতে 6 থেকে 23 মাস বয়সি শিশুদের মধ্যে মাত্র 9.6 শতাংশ সুষম খাদ্য পায়
  •  ভারতে শিশুদের মধ্যে 2008 থেকে 2012 পর্যন্ত ক্ষয়ের হার ছিল 16.5 শতাংশ, যা 2014 থেকে 2018-র মধ্যে বেড়ে হয়ে যায় 20.8 শতাংশ।
  • চারটি নির্দেশক মেনে নির্ণয় করা হয় GHI স্কোর – ১) অপর্যাপ্ত পুষ্টি; ২) শিশুদের ক্ষয়, পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে ক্ষয়ের পরিমাণ (অর্থাৎ উচ্চতার তুলনায় কম ওজন, যার মূলে থাকে পুষ্টির অভাব); ৩) শিশুদের শারীরিক বৃদ্ধি হ্রাস, পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে বয়সের তুলনায় কম উচ্চতার হার (যার অর্থ হলো দীর্ঘস্থায়ী অপুষ্টি); এবং ৪) পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে মৃত্যুর হার।
আরও পড়ুন  দৈনিক বাংলা কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ১১ ও ১২ এপ্রিল ২০২১

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Facebook Comments

Recommended For You

About the Author: Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *