ঝাড়খণ্ডের সরকারি স্কুলে ছাদ ফুটো, ছাতা নিয়ে চলছে ক্লাস

ছাদ ফুটো হয়ে যাওয়ার কারণে বর্ষায় জল থেকে বাঁচতে ঘোড়াবান্ধা জেলার একটি সরকারী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ছাতার নিচে পড়াশোনা করতে বাধ্য হচ্ছে। বিদ্যালয়টি জেলার মুরেঠাকুড়া গ্রামে অবস্থিত। শিক্ষক রতি কান্ত প্রধান বলেছেন, “দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা এড়াতে আমরা বিদ্যু বন্ধ করে রেখেছি। আমি সরকারকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার এবং সমাধানের জন্য অনুরোধ করছি।” খবরে বলা হয়েছে, স্কুলে মাত্র সাতটি শ্রেণিকক্ষ রয়েছে, যার মধ্যে তিনটি বাদে বেশিরভাগের অবস্থা খারাপ। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বৃষ্টিপাত পড়াশুনায় বাধা সৃষ্টি করে। একজন শিক্ষার্থী বলেন, “বৃষ্টির কারণে আমাদের অনেক সমস্যায় পড়তে হয় যা আমাদের বইগুলি নষ্ট করে দেয়”। সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশুনা করা কল্পনা বলেছে, “আমি 7ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করি, ছাদটি ভেঙে গেছে তাই আমরা ছাতা নিয়ে এসেছি।” প্রধান দাবি করেছেন যে বিদ্যালয়ে প্রায় 170 জন ছাত্র ছাত্রী পড়াশোনা করছে, তাদের নতুন ভবনে স্থানান্তর করার জন্য রাজ্য সরকারকে অনুরোধও করা হয়েছে ।প্রশাসনকে বারবার বললেও শিক্ষকদের অনুরোধ কান দেয়নি কেউ ।

Advertisement

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: