“মুসলিমদের থেকে সবজি কিনবেন না!”হুমকি বিজেপি বিধায়কের

উত্তরপ্রদেশের এক বিজেপি বিধায়ক, দেশব্যাপী করোনভাইরাস লকডাউনের মধ্যে মুসলমানদের কাছ থেকে শাকসবজি কেনার বিরুদ্ধে সতর্ক করার জন্য ক্যামেরায় ধরা পড়েন, তীব্র সমালোচিত হয়েছেন। দেওরিয়ার বিধায়ক সুরেশ তিওয়ারি তার আপত্তিজনক মন্তব্যকে সমর্থন করে বলেছেন: “আমি কি কিছু ভুল বলেছি?”

লখনউয়ে এক মুসলিম আনাজ বিক্রেতাকে হুমকি দিচ্ছেন তিনি। ব্রিজভূষণের দাবি, ওই আনাজ বিক্রেতা মুসলিম হলেও নিজের নাম রাজকুমার বলেছিলেন। ভিডিয়োতে ব্রিজভূষণকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘‘নিজের নাম ঠিক করে বলো। না হলে, মার খেতে হবে।’’ আনাজ বিক্রেতার সঙ্গে ছিল তাঁর নাবালক ছেলে। তারও নাম জিজ্ঞাসা করেন বিধায়ক। সে নিজেকে মুসলিম পরিচয় দেয়। ব্রিজভূষণ আনাজ বিক্রেতাকে হুমকি দেন, এলাকায় আর তাঁকে দেখা গেলে মার খেতে হবে।

আরও পড়ুন  একুশের বিধানসভার আগে বড়সড় রদবদল মালদহের তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে

“(এআইএমআইএম প্রধান আসাদুদ্দিন) ওবাইসি হিন্দুদের সম্পর্কে আপত্তিকর কথা বলেছেন। কেউই বিরক্ত করেনা এবং একজন বিধায়ক তার নির্বাচনী এলাকার লোকদের কেবল তাদের সুবিধার জন্য কিছু বলেননি এবং এতটা ঘটনা ঘটেছে,” তিনি  সাংবাদিকদের বলেন।

মিঃ তিওয়ারি এই মন্তব্যটি দেখায় এমন ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকে সমালোচিত হয়েছেন। তাঁর মন্তব্যের জন্য যারা বিজেপি নেতার নিন্দা করেছেন তাদের মধ্যে ছিলেন কংগ্রেস নেতা নাগমা, অভিনেতা-রাজনীতিবিদ।

আরও পড়ুন  একুশের বিধানসভার আগে বড়সড় রদবদল মালদহের তৃণমূলের সাংগঠনিক স্তরে

গত সপ্তাহেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, কোভিড-19 মহামারী সবাইকে সমানভাবে প্রভাবিত করে। “কোভিড-১৯ আক্রমণের আগে জাতি, ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ, ভাষা বা সীমান্ত দেখে না। সুতরাং আমাদের প্রতিক্রিয়া ও আচরণে ঐক্য ও ভ্রাতৃত্ববোধকেই জাগিয়ে তুলতে হবে। আমরা এতে একসঙ্গেই রয়েছি,” বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

Facebook Comments

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *