2021 এর আদমশুমারি হবে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে, বাড়িতে যাবে না আর কেউ

2021 এর আদমশুমারি আর বাড়িতে কি হবে না, সম্পূর্ণ আদমশুমারি হবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে, এ কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন 2021 এর আদমশুমারি হবে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে খরচ পড়বে 8754 কোটি টাকা। ডিজিটাল ইন্ডিয়ার এটি নতুন পদক্ষেপ।

আদমশুমারির তথ্য মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হবে। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে আদমশুমারি প্রথমবার হতে চলেছে। খাতা কলম থেকে ডিজিটালি আদমশুমারি ভারতে একটা নতুন বিপ্লব হতে চলেছে, একথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এ পদ্ধতির মাধ্যমে সাধারণ মানুষ কেন্দ্রীয় মন্ত্রণালয় থেকে তৈরি করা মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে তাদের নিজের তথ্য আপলোড করতে পারবেন। এই জনগণনার কাজ চলবে 16 টি ভাষাতে।

অমিত সাহা বলেছেন, এই পদ্ধতির মাধ্যমে জনগণনা হলে সাধারণ মানুষের জনকল্যাণমূলক যোজনা সর্ভা করতে প্রচুর সুবিধা হবে।

আদমশুমারি প্রক্রিয়ায় জনগণের অংশগ্রহণের গুরুত্বের উপর জোর দিয়ে অমিত শাহ বলেছেন যে দেশে বর্ধন ও উন্নয়নের জন্য দীর্ঘমেয়াদী ভবিষ্যতের পরিকল্পনার ভিত্তি হ’ল 130 কোটি ভারতীয়কে আদমশুমারির গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতন করা দরকার।

ভারতে আদমশুমারি প্রক্রিয়াটির ইতিহাস সন্ধান করে অমিত শাহ বলেছিলেন যে ভারতে আদমশুমারি বহু শতাব্দী প্রাচীন ঐতিহ্য।

অমিত শাহ জানিয়েছেন যে 2011 সালের আদমশুমারির তথ্য অনুসারে, ভারত বৈশ্বিক ভূমি অঞ্চল এবং সম্পদের 2.4% নিয়ে গঠিত, যেখানে বিশ্বব্যাপী জনসংখ্যার 17.5% রয়েছে। “এই পরিসংখ্যানগুলি আমাদের জানায় যে সংস্থান এবং উন্নয়নের প্রয়োজনের মধ্যে ভারসাম্যহীনতা দূর করে আগাম সময়ে তার নাগরিকদের প্রয়োজনীয় বৃদ্ধি এবং বিকাশ অর্জনে ভারতকে কতটা কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন যে 2011 সালের আদমশুমারিতেও সুসংবাদ এলো যে ভারতে সাক্ষরতার হার বেড়েছে 74% হয়েছে এবং ভারত একটি ‘ইয়ং নেশন’।অমিত শাহ বলেন,2021 সালের আদমশুমারি “দেশের ভবিষ্যতের অর্থনৈতিক উন্নয়নের বৈজ্ঞানিক পরিকল্পনার জন্য বিল্ডিং ব্লক” হিসাবে কাজ করবে। এই আদমশুমারি তথ্যের ভিত্তিতে নির্বাচনী অঞ্চলগুলি সীমানাতে পরিণত হবে যা ভারতের সর্বস্তরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াটিকে শক্তিশালী করার দিকে পরিচালিত করবে। “এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন যে এই আদমশুমারিটি ‘জন ভাগিদারী’ মহড়ার আগে কখনও হয়নি।2021 সালের আদমশুমারির ভিত্তিতে মোদী সরকার প্রতিটি বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ, গ্যাস সংযোগ, দরিদ্রদের জন্য ঘর নির্মাণ, টয়লেট, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এবং ব্যাংক শাখা খোলার বিষয়ে 22 টি কল্যাণমূলক পরিকল্পনা করেছে।

তিনি দরিদ্র পরিবারগুলিকে বিনামূল্যে এলপিজি সংযোগ প্রদানের সরকারের ‘উজ্জ্বল’ প্রকল্পের উদাহরণ উল্লেখ করে বলেন, 2011 সালের আদমশুমারির ভিত্তিতে এই প্রকল্পটি তৈরি করা হওয়ায় এটি সফল হয়েছে।

২০২২ সালের মধ্যে এমন কোনও পরিবার থাকবে না যার গ্যাস সংযোগ থাকবে না,” তিনি বলেছেন।

Facebook Comments

Recommended For You

About the Author: Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *